ধর্মঘটের ডাক সিএনজি অটোরিকশার মালিক-শ্রমিকদের

প্রকাশ: ০২ অক্টোবর ২০১৯     আপডেট: ১৩ নভেম্বর ২০১৯   

সমকাল প্রতিবেদক

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

পুলিশি হয়রানি বন্ধসহ ৯ দফা দাবিতে আগামী ১৫, ১৬ ও ১৭ অক্টোবর ৭২ ঘণ্টার ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে ঢাকা মহানগর সিএনজি অটোরিকশা মালিক-শ্রমিক সংগ্রাম পরিষদ।

বুধবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের নেতারা এ কর্মসূচির ঘোষণা দেন। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে আয়োজক পরিষদের আহ্বায়ক মো. বরকত উল্লাহ ভুলু কয়েক দফা দাবি জানান। 

দাবিগুলোর মধ্যে আছে- রাজধানীতে চলাচলরত ঢাকা জেলা, গাজীপুর, নারায়ণগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জসহ বিভিন্ন জেলার অটোরিকশা ও অন্যান্য অবৈধ সিএনজি অটোরিকশা চলাচল নিষিদ্ধ করতে হবে; প্রাইভেট সিএনজি অটোরিকশার বাণিজ্যিক ব্যবহার বন্ধ করতে হবে; সুনির্দিষ্ট পার্কিংয়ের ব্যবস্থা না করে নো পার্কিং মামলা ও ডাম্পিং করা যাবে না; এসএস স্টিলের গ্রিল বাম্পার রং করার নামে মামলা এবং ভিডিও/গায়েবি মামলাসহ অন্যায়ভাবে কোনো রকম মামলা ও রেকারিং করা যাবে না; রাইড শেয়ারিং সার্ভিসের অনুমোদনবিহীন সকল মোটরসাইকেল ও প্রাইভেটকার বাণিজ্যিক ব্যবহার বন্ধ করতে হবে; রাইড শেয়ারিং সার্ভিসের সকল চালককে নির্দিষ্ট পোশাক, পেশাদারি লাইসেন্স বাধ্যতামূলক করতে হবে; সেপ্টেম্বর ২০১৫ সালের পর চার বার গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির কারণে চালকের ব্যয় বৃদ্ধি হওয়ায় ভাড়ার মিটারে প্রথম ২ কিলোমিটার ৮০ টাকা এবং পরবর্তী প্রতি কিলোমিটার ৩০ টাকা এবং ওয়েটিং চার্জ প্রতি মিনিট ৪ টাকা এবং মালিকের দৈনিক জমা আনুপাতিক হারে বাড়াতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, এসব দাবি মানা না হলে আগামী ৬ অক্টোবর সকাল ১১টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন, ৭ থেকে ১২ অক্টোবর থানায় থানায় কর্মিসভা ও গণসংযোগ, ১৩ অক্টোবর সকাল ১১টায় জাতীয় প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে মালিক-শ্রমিক সমাবেশ এবং আগামী ১৫, ১৬ ও ১৭ অক্টোবর মঙ্গল, বুধ ও বৃহস্পতিবার ৩ দিন লাগাতার ৭২ ঘণ্টার সিএনজি অটোরিকশা ধর্মঘট পালন করা হবে।

পরিষদের সদস্য সচিব সাখাওয়াত হোসেন দুলালের সঞ্চালনায় সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেন এটিএম নাজমুল হাসান, মোতালেব হোসেন, মামুনুর রশীদ পিন্টু, আব্দুল করিম, মো. হারুন অর রশীদ, মোশারেফ হোসেন, সিদ্দিকুর রহমান, শাহে আলম, আব্দুল খালেক মজনু, অহিদুজ্জামান, শাহাবাজ খান সাজু, আব্দুল জাব্বার, মো. ইসলাম, মকবুল হোসেন, নুর মোর্শেদ, দেলোয়ার হোসেন, মো. মিঠু, জাহাঙ্গীর হোসেন, আব্দুল মালেক, মাহাবুর প্রমুখ।