হ্যালন্ডের রিলিজ ক্লজ মাত্র ৭৫ মিলিয়ন!

প্রকাশ: ২৭ অক্টোবর ২০২০   

অনলাইন ডেস্ক

বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের নরওয়ে স্ট্রাইকার আর্লিং হ্যালন্ড। ছবি: ফাইল

বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের নরওয়ে স্ট্রাইকার আর্লিং হ্যালন্ড। ছবি: ফাইল

বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা তরুণ ফুটবলার আর্লিং হ্যালন্ড। গতি, উচ্চতা, ফিটনেস, গোল করার দক্ষতার কারণে বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের এই তরুণ বড় বড় ক্লাবের চোখে পড়েছে। তবে তাকে দলে নেওয়ার ব্যাপারে বেশি আগ্রহী রিয়াল মাদ্রিদ।

করিম বেনজেমার বয়স হয়েছে। তার বিকল্প স্ট্রাইকার লুকা জোভিক লস ব্লাঙ্কোসদের আশা দিতে পারছে না। বোর্জা মায়োরালকে ধারে ছেড়ে দিয়েছে রিয়াল। চলতি মৌসুমে কোন ফুটবলার না কেনা রিয়াল আগামী মৌসুমে তাই আঁটঘাট বেধে মাঠে নামতে পারে। হ্যালন্ড তাই হতে পারেন তাদের টপ টার্গেট।

তারকাখ্যাতি পেয়ে যাওয়া নরওয়ের এই স্ট্রাইকারকে রিয়াল অল্প দামেই পেয়ে যেতে পারে। তার সঙ্গে ডর্টমুন্ডের চুক্তি আছে ২০২২ মৌসুম পর্যন্ত। ফ্রিতে হ্যালন্ডকে ছেড়ে দেওয়ার চেয়ে আগামী মৌসুমে তাই হ্যালন্ডকে বিক্রি করে দেওয়াই শ্রেয় মনে করতে পারে জার্মান ক্লাবটি। সেক্ষেত্রে তার রিলিজ ক্লজ ধরা হয়েছে মাত্র ৭৫ মিলিয়ন ইউরো।

অর্থাৎ ক্লাবের অনিচ্ছায় হ্যালন্ডকে দলে আনতে হলে ওই অর্থ ডর্টমুন্ডকে দিতে হবে। বিখ্যাত ক্রীড়া সাংবাদিক ফ্যাব্রিজিও রোমারিও এমনই খবর দিয়েছেন। আলোচনায় দামটা হতে পারে আরও কম।

সেখানে বর্তমান বিশ্বের অন্যতম সেরা তারকা মেসির রিলিজ ক্লজ ৩০০ মিলিয়ন ইউরো। নেইমারের দাম ২০০ মিলিয়ন। এমবাপ্পেকে দলে ভেড়াতে খরচা করতে হবে দেড়শ-দুইশ’ মিলিয়ন ইউরো। এমনকি লুকা জোভিকের মতো স্ট্রাইকারকে রিয়াল কিনেছে ৬০ মিলিয়ন দিয়ে। জাদন সানকোর দাম ধরা হয় ১০০ মিলিয়ন। সেখানে হ্যালন্ডের জন্য ৭৫ মিলিয়ন ইউরোকে কমই বলতে হবে।